অর্থনীতি

আশুলিয়ায় ১০ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন, ১২০ শ্রমিক বরখাস্ত

বাংলাদেশ পোশাক প্রস্তুতকারক ও রফতানিকারকদের সংগঠন বিজিএমইএ’র ঘোষণা অনুযায়ী সাভারের আশুলিয়া শিল্পাঞ্চলে ৫৫টিরও বেশি পোশাক কারখানা বুধবার (২১ ডিসেম্বর) সকাল থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ রয়েছে। কারখানাগুলোর প্রধান গেটের সামনে অনির্দিষ্টকালের বন্ধের নোটিশ ঝুলিয়ে দিয়েছে কারখানার মালিকপক্ষ। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সঙ্গে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)-এর দশ প্লাটুন সদস্য নিয়োগ করা হয়েছে।

এদিকে আশুলিয়ার উইন্ডি গ্রুপের পোশাক কারখানার ১২০ শ্রমিককে বরখাস্ত করেছে মালিকপক্ষ। বুধবার সকালে কারখানার মূল ফটকের সামনে ছাঁটাইকৃত শ্রমিকদের বিষয়ে নোটিশ ঝুলিয়ে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। টানা ১০ দিন ধরে শ্রমিক অসন্তোষ ও ভাঙচুরের ঘটনায় আশুলিয়া থানায় কারখানার শ্রমিক জীবন মিয়া,আসাদুজ্জামান, হাফিজুর রহমান, সুরুজ মিয়া, সুলতানা আক্তারসহ ২০ জনের নাম উল্লেখ করে এবং শতাধিক শ্রমিককে অজ্ঞাত আসামি করে একটি মামলা দায়ের হয়েছে। কারখানার প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও শিল্প পুলিশ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সকাল থেকে আব্দুল্লাহপুর-বাইপাইল সড়কে দূরপাল্লার ও আঞ্চলিক গণপরিবহণ চলাচল সম্পূর্ণ বন্ধ ছিল। একমাত্র রিকশা ও মাহেন্দ্র চলাচল করছে। চরম দুর্ভোগ আর ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে সাধারণ যাত্রীদের। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে শিল্প পুলিশ, জেলা পুলিশ, দাঙ্গা পুলিশ, র‌্যাব, বিজিবি’র সঙ্গে স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ সংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মীকে সড়কে মহড়া দিতে দেখা গেছে।

এর আগে মঙ্গলবার (২০ ডিসেম্বর) বিকালে রাজধানীর কাওরান বাজারে বিজিএমইএ -এর সভাকক্ষে জরুরি সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনটির সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান তার মালিকানাধীন স্টার্লিং অ্যাপারেলস,  স্টার্লিং  ক্রিয়েশন, স্টার্লিং স্টাইল ও বান্দ ডিজাইনসহ বিভিন্ন মালিকের ৫৫টি পোশাক কারখানা শ্রম আইনের ১৩(১) ধারা অনুযায়ী অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধের ঘোষণা দেন।ঘোষণা অনুযায়ী মালিকপক্ষ আশুলিয়ার এসব কারখানার  প্রধান গেটে অনির্দিষ্টকালের বন্ধের নোটিশ ঝুলিয়ে দেয়। বন্ধকালীন শ্রমিকরা বেতনভাতা পাবেন না বলেও সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়।

এছাড়া ঢাকা জেলা পুলিশের ব্যবস্থাপনায় আশুলিয়ার সব স্থানে খোলা জিপে করে শ্রমিকদের উদ্দেশে কারখানায় ও কারখানার গেটের সামনে যেতে নিষেধাজ্ঞা প্রচার করা হয়।

সাভার ও আশুলিয়া এলাকায় প্রায় ছয় শতাধিক পোশাক কারখানা রয়েছে।  শ্রমিকরা অনেকে কারখানার সামনে যাওয়ার চেষ্টা করলেও তাদেরকে ফিরিয়ে দেওয়া হয় বলে শ্রমিকরা অভিযোগ করেছেন। বুধবার সকাল থেকে আব্দুল্লাহপুর-বাইপাইল সড়কে কোনও গণপরিবহন চলাচল না করায়, বেশির ভাগ শ্রমিক  কারখানায় কাজে যোগদান করতে পারেননি। বাইপাইল এলাকায় পুলিশ ব্যারিকেড দিয়ে কোনও যানবাহন ওই সড়কটিতে ঢুকতে দেয়নি।

 
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Most Popular

সম্পাদক:

বিপুল রায়হান

১৩/২ তাজমহল রোড, ব্লক-সি, মোহাম্মদপুর,ঢাকা-১২০৭, ফোন : 01794725018, 01847000444 ই-মেইল : info@jibonthekenea.com অথবা submissions@jibonthekenea.com

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত জীবন থেকে নেয়া ২০১৬ | © Copyright Jibon Theke Nea 2016

To Top
Left Menu Icon
Right Menu Icon