অর্থনীতি

‘দেশে একটি অনন্য ভেঞ্চার ক্যাপিটাল ইকো-সিস্টেম তৈরি করতে সরকার কাজ করছে’ : তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, দেশে একটি অনন্য ভেঞ্চার ক্যাপিটাল ইকো-সিস্টেম তৈরি করতে সরকার কাজ করছে।
একটি স্টার্ট-আপ ইকো সিস্টেম তৈরি করতে মূলত তিন স্তরের একটি পিরামিড স্ট্রাকচারের নমুনা সরকার চিন্তা করছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, যার সবচেয়ে উপরে থাকবে ইনোভেটররা।
আজ সকালে রাজধানীর জনতা টাওয়ারস্থ সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কে ‘ক্রিয়েটিং এ ভেঞ্চার ক্যাপিটাল ইকো-সিস্টেম: গভর্নমেন্ট’স রোল’ শীর্ষক গোলটেবিল আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।
জুনায়েদ বলেন, ইনোভেটররা হয়তো সংখ্যায় অল্প হবে কিন্তু বাংলাদেশে আইটি শিল্পে তারা বিশাল অবদান রাখবে। এর পরে থাকবে এচিভাররা, যারা আইটি/আইটিএস গ্রাজুয়েশন করে কোম্পানীর সিইও বা সিএক্সও বা সিএফও হবেন। তাদের সে মেধাকে লালন করতে সরকার সহযোগিতা করবে।
তিনি বলেন, সবশেষে থাকবে যারা আমাদের ফ্রিল্যান্সিং খাতসহ অন্যান্য খাতে সংশ্লিষ্ট এবং এ খাতকে এগিয়ে নিতে ছোট ছোট উদ্যোগে জড়িত।
প্রতিমন্ত্রী পলক বলেন, বাংলাদেশে একটা স্টার্ট-আপ ইকো সিস্টেম তৈরি বা একটা ইনোভেশন কালচার তৈরি করতে সরকার বিশেষজ্ঞদের কাছ থেকে শুনতে চায় যে এ খাতে সরকারের কি কি করণীয়।
তিনি বলেন, আমরা প্রাইভেট সেক্টরগুলোর কাছ থেকেও জানতে চাই তাদের প্রবৃদ্ধিতে সরকারের পক্ষ থেকে তারা প্রয়োজনীয় কি পরিমাণ সুযোগ সুবিধা চান। এ জন্যই আমরা বিশেষজ্ঞদের এবং প্রাইভেট সেক্টরকে আমন্ত্রণ করেছি।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, আইসিটি ডিভিশন এ খাত সংশ্লিষ্ট সকলের সাথে এক যোগে কাজ করার মাধ্যমে একটি ক্রিয়েটিভ ভেঞ্চার ক্যাপিটাল ইকো-সিস্টেম সৃষ্টিতে কাজ করবে।
উক্ত গোলটেবিল আলোচনায় ভেঞ্চার ক্যাপিটাল ইকো-সিস্টেম গড়ে তুলতে করণীয় এবং বিশ্বের অন্যান্য দেশের বেস্ট প্র্যাকটিসগুলো নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সান-ফ্রান্সিসকো স্টেট ইউনির্ভাসিটির ড. মাহমুদ হুসাইন কি-নোট উপস্থাপন করেন।
তথ্য ও যোগাযোগ বিভাগের সচিব শ্যাম সুন্দর সিকদারের সভাপতিত্বে গোলটেবিল আলোচনায় সান ফ্রান্সিসকো-ভিত্তিক সিপিএ ভেঞ্চার ক্যাপিটালের কনসালটেন্ট টিনা জাবিন, বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি’র বোর্ড অব ট্রাস্টির চেয়ারম্যান জামিল আজহার, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বনমালী ভৌমিক, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের অতিরিক্ত সচিব সুশান্ত কুমার সাহা, বেসিসের সাবেক সভাপতি শামীম আহসান, সহজ.কম এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মালিহা এম কাদির, প্রতিমন্ত্রীর একান্ত সহকারী আব্দুল বারীসহ আরো অনেকেই অংশগ্রহণ করেন।
দেশীয় তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলোতে ভেঞ্চার ক্যাপিটালের সংযোগ, স্টার্ট-আপদের সহযোগিতা এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ গৃহীত ইনোভেশন ডিজাইন এন্ড ইন্ট্রাপ্রেনিওরশীপ একাডেমীর (আইডিয়া) উদ্যোগে আজকের গোলটেবিল আলোচনা থেকে উৎসরিত সুপারিশমালার কার্যকরের দাবি জানানো হয়। বাসস।

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Most Popular

সম্পাদক:

বিপুল রায়হান

১৩/২ তাজমহল রোড, ব্লক-সি, মোহাম্মদপুর,ঢাকা-১২০৭, ফোন : 01794725018, 01847000444 ই-মেইল : info@jibonthekenea.com অথবা submissions@jibonthekenea.com

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত জীবন থেকে নেয়া ২০১৬ | © Copyright Jibon Theke Nea 2016

To Top