খেলা

ফার্গুসনের জায়গায় ওয়েঙ্গারকে কোচ হিসেবে চেয়েছিল ম্যান ইউ!

সম্প্রতি নিজের আত্মজীবনী ‘রেড গ্লোরি : ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড অ্যান্ড মি’ প্রকাশ করেছেন ম্যান ইউয়ের সাবেক চেয়ারম্যান এডওয়ার্ড মার্টিন। সেখানে তিনি দাবি করেছেন ২০০১-০২ সেশনে স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসনের বিকল্প হিসেবে আর্সেন ওয়েঙ্গারের সঙ্গে কথা বলেছিলেন! আসলে ওই মৌসুমে গানার্সদের কাছে বিপর্যস্ত হওয়ার পর অবসর নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসন। তার বিকল্প হিসেবে তৎকালীন ম্যান ইউ চেয়ারম্যানের পছন্দ ছিল নাকি ওয়েঙ্গার। সেই কথাই এবার প্রকাশ করলেন বইয়ের পাতায়।

এই পছন্দ থেকেই ফরাসি কোচের সঙ্গে দেখাও করেছিলেন মার্টিন। তার ভাষায়, ‘অ্যালেক্স অবসর নিলে আমাদের প্রথম পছন্দ ছিল ওয়েঙ্গার। সেই মতো আমরা ওর কাছে যাই। তিনি তখন কিছুটা হলেও আমাদের প্রস্তাবে আগ্রহী হয়েছিল। কোচ হওয়ার প্রক্রিয়া নিয়ে আমার সঙ্গে ওর কথা হয়েছিল। যদিও সেটা সম্ভব হয়নি। কারণ ফার্গুসন মত পরিবর্তন করে থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন।’

কিন্তু ওয়েঙ্গার এ প্রসঙ্গে বলেছেন, ‘আমি কখনোই আর্সেনাল ছাড়ার কথা ভাবিনি। এডওয়ার্ড কি বলেছেন সেটা ওনার ব্যাপার। আমি এখানে খুব ভালো আছি। আমি আর্সেনাল ক্লাবকে ভালোবাসি।’

নিজের আত্মজীবনীতে এডওয়ার্ড আরো লিখেছেন, ফার্গুসন নাকি পদত্যাগ করেছিলেন। ১৯৯৮ প্রিমিয়র লিগে আর্সেনালের থেকে এক পয়েন্ট কম পেয়ে রানার্স হয় ম্যান ইউ। এরপর ফ্রান্সে ছুটি কাটাতে যান ফার্গুসন। সেখান থেকে তাকে ডেকে পাঠান এডওয়ার্ড। ডেকে আনার কারণ ছিল লিগে রানার্স কারণ জানতে চাওয়া।

এডওয়ার্ডের কথায়, ‘তিনি ঘরে ঢুকেই বুঝতে পেরেছিলেন যে আমরা কি বলতে চাইছি। তারপর আমি ও রোলান্ড (তখনকার চেয়ারম্যান) তাকে আমাদের অনুভূতি সম্পর্কে বলি। তিনি বলেছিলেন, তোমাদের অনুভূতি আমি বুঝতে পারছি। তাই আমি পদত্যাগ করলাম। কিছুক্ষণ পর অবশ্য অ্যালেক্স নিজের পদত্যাগপত্র ফিরিয়ে নেন। তবে সে দিন তিনি যদি নিজের পদত্যাগপত্র ফিরিয়ে না নিতেন, তাহলে আমি তাকে ফিরিয়ে আনতে যেতাম না। তবে আমি জানতাম তিনি ফিরে আসবেন।’

-স্পোর্টস ডেস্ক

Views All Time
Views All Time
25
Views Today
Views Today
1
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Most Popular

সম্পাদক:

বিপুল রায়হান

১৩/২ তাজমহল রোড, ব্লক-সি, মোহাম্মদপুর,ঢাকা-১২০৭, ফোন : 01794725018, 01847000444 ই-মেইল : info@jibonthekenea.com অথবা submissions@jibonthekenea.com

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত জীবন থেকে নেয়া ২০১৬ | © Copyright Jibon Theke Nea 2016

To Top