ইউরোপ

ব্রাসেলসে পালালেন পুজেমন, বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে মামলা

বরখাস্ত হওয়া কাতালান সরকার ও ভেঙে দেওয়া কাতালান পার্লামেন্টের নেতাদের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ এবং রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগে মামলা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন স্পেনের অ্যাটর্নি জেনারেল।

কাতালান সরকার পার্লামেন্টে একতরফাভাবে কাতালোনিয়ার স্বাধীনতা ঘোষণা করার কয়েকদিন পর, কেন্দ্রীয় সরকারের সর্বোচ্চ আইন কর্মকর্তা একথা জানালেন।

এদিকে কাতালানের ‘ক্ষমতাচ্যুত’ নেতা কার্লোস পুজেমন গতকাল সোমবার বেলজিয়ামের ব্রাসেলসে পাড়ি জমিয়েছেন বলে স্পেনের সরকারি সূত্র জানিয়েছে।

কাতালোনিয়ার এক দৈনিক পত্রিকার খবরে বলা হয়েছে, স্পেন সরকারের এক সূত্র নিশ্চিত করেছে, কাতালান নেতা পুজেমন এখন ব্রাসেলসে। তার সঙ্গে ব্রাসেলসে গেছেন তার প্রশাসনের কর্মকর্তারাও।

সংক্ষিপ্ত এক বিবৃতিতে হোসে মানুয়েল মাজা বলেছেন, তাদের অসাংবিধানিক তৎপরতার কারণে প্রাতিষ্ঠানিক কিছু সঙ্কটের তৈরি হয়েছে। এদিকে মাদ্রিদ সোমবার থেকে কাতালানের বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠানের সরাসরি নিয়ন্ত্রণ নিতে শুরু করেছে।

স্পেনের কেন্দ্রীয় সরকার এখন স্পষ্টতই কাতালোনিয়ার নিয়ন্ত্রণ নিজেদের হাতে তুলে নিচ্ছে।

কাতালান প্রেসিডেন্ট কার্লোস পুজেমন এখন কার্যত নামেই তার পদে আছেন। স্পেনের ডেপুটি প্রধানমন্ত্রী সোরায়া সেয়াঞ্জ দে সান্তামারিয়া সে দায়িত্ব নিয়েছেন।

পুজেমন এবং তার সরকার এখন বরখাস্ত। তা হলেও তারা বলছেন কিছুই পরিবর্তন হয় নি এবং তারা কেন্দ্রীয় সরকাররে কর্মকাণ্ডকে অভ্যুত্থান বলে আখ্যায়িত করছেন। বরখাস্ত হওয়া কাতালান মন্ত্রীরা কতজন অফিস করতে আসবেন তাও স্পষ্ট নয়।

পিয়ান পার্লামেন্টের এমপি এ্যালফ্রেড বশ বলছেন, তিনি মনে করেন পুজেমন অফিসে আসবেন।

তিনি বলেন, ‘আমি নিশ্চিত যে কাতালোনিয়া প্রজাতন্ত্রের প্রেসিডেন্ট পুজেমন কাজে আসবেন। কারণ এটাই তার কাজ । তাকে সরাসরি কাতালান পার্লামেন্ট নির্বাচিত করেছে, যা গণতান্ত্রিক নির্বাচনের ফল। তাকে এ দেশের নেতৃত্ব দেয়া হয়েছে। তাকে এটা করতে হবে, তিনি সে দায়িত্ব ত্যাগ করতে পারেন না।’

এমন খবরও পাওয়া যাচ্ছে যে, পুজেমনকে হয়তো আটক করা হতে পারে। কাতালানের স্থানীয় পুলিশ ইতিমধ্যেই কেন্ত্রীয় সরকারের নির্দেশ মেনে পুলিশ স্টেশনগুলো থেকে তার ছবি সরিয়ে ফেলেছে।

কাতালান স্বাধীনতারবিরোধী সোশালিস্ট সিভিল কাতালানর নেতা হুয়ান আরজা বলছেন, স্বাধীন কাতালোনিয়ার কার্যত কোনও অস্তিত্ব নেই। তিনি বলেন, ‘এখানে সবাই কাজ করছে, সবকিছু স্বাভাবিক। আমার মনে হয় জাতীয়তাবাদীদের এখন ভাবতে হবে যে তারা ভবিষ্যতে কি করবে। কারণ সামনে নতুন নির্বাচন আসছে। কাতালান প্রজাতন্ত্রর অস্তিত্ত্ব এখন শুধু জাতীয়তাবাদীদের কল্পনায়। দুনিয়ার বাকি লোকেদের কাছে এর কোনও অস্তিত্ত্ব নেই।’

স্পেনের সরকার জানে যে খুব বেশি জবরদস্তি করে কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠা করতে হলে হিতে বিপরীত হতে পারে এবং তাতে বিচ্ছিন্নতাবাদীরাই লাভবান হতে পারে।

তবে স্পেনের কেন্দ্রীয় সরকার কাতালানে তাদের নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ।

-বিদেশ ডেস্ক

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Most Popular

সম্পাদক:

বিপুল রায়হান

১৩/২ তাজমহল রোড, ব্লক-সি, মোহাম্মদপুর,ঢাকা-১২০৭, ফোন : 01794725018, 01847000444 ই-মেইল : info@jibonthekenea.com অথবা submissions@jibonthekenea.com

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত জীবন থেকে নেয়া ২০১৬ | © Copyright Jibon Theke Nea 2016

To Top